বাবার কিনে দেওয়া রশি পেঁচিয়ে কলেজ ছাত্রীর আত্মহত্যা

স্টাফ রিপোর্টার, দিনাজপুর : দিনাজপুরে বাবার কিনে দেওয়া দড়িলাফ খেলার রশি গলায় পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেছেন ভূমিকা অধিকারী (১৮) নামের এক কলেজছাত্রী। রবিবার রাতের কোন এক সময় শহরের গুঞ্জাবাড়ি মন্দির এলাকার বাসায় ওই ছাত্রী আত্মহত্যা করেন। সোমবার দুপুরে লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠায় পুলিশ।

ভূমিকা অধিকারী স্থানীয় স্কুলশিক্ষক বিবেক চন্দ্র অধিকারীর মেয়ে। ওই এলাকার পরিতোষ রায়ের বাড়িতে পরিবার নিয়ে ভাড়া থাকছেন বিবেক চন্দ্র। ভূমিকা অধিকারী দিনাজপুর সরকারি মহিলা কলেজের বিজ্ঞান বিভাগের দ্বিতীয়বর্ষের ছাত্রী ছিলেন।
পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, রবিবার রাতে খাওয়া-দাওয়া শেষে ঘুমাতে যান ভূমিকা। সোমবার সকালে বাবা ডাকাডাকি করে কোনো ধরনের সাড়া-শব্দ পাচ্ছিলেন না। পরে দরজা ভেঙে ঘরে ঢুকে ফ্যানের সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় মেয়েকে দেখতে পান বাবা।

এ সময় নিহতের পিতা বিবেক চন্দ্র অধিকারী জানিয়েছেন, শরীরচর্চার জন্য কয়েকদিন আগে দড়িলাফ খেলার রশি কিনে দিয়েছিলাম। সেই রশি গলায় পেঁচিয়ে মেয়ে আত্মহত্যা করেছে। তবে কেন আত্মহত্যা করেছে আমাদের জানা নেই। তার সঙ্গে পরিবারের কারও রাগারাগি হয়নি।

দিনাজপুর কোতোয়ালি থানার ওসি মোজাফফর হোসেন জানান, কলেজছাত্রীর রুম থেকে আমরা একটি চিঠি উদ্ধার করেছি। বিষয়টি তদন্ত করে দেখছি। লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।এ ব্যাপারে থানায় একটি মামলা দায়ের হয়েছে।