১৩ জুন খুলছে না শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান

ঢাকা : সার্বিক কার্যক্রম ও চলাচলে বিধিনিষেধ আরোপের সময় পর্যন্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলছে না। বিধিনিষেধ উঠে যাওয়ার পর শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়া হবে। জানতে চাইলে শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল বলেন, ‘মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের জারি করা প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী সার্বিক চলাচলে বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে। ফলে বিধিনিষেধ থাকা পর্যন্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলছে না।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগের সচিব মো. আমিনুল ইসলাম খান বলেন, ‘করোনা সংক্রমণের হার ৫-এর নিচে না নামলে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার বিষয়ে জাতীয় টেকনিক্যাল পরামর্শক কমিটি সম্মত হচ্ছে না। আর সে কারণে আমাদের আর একটু অপেক্ষা করতে হচ্ছে।’

এদিকে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের নির্দেশনায় বলা হয়েছে, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের নির্দেশনায় সার্বিক কার্যক্রম ও চলাচলে বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে। এই বিধিনিষেধ যথাযথভাবে পালন করতে হবে।

প্রসঙ্গত, আগামী ১৩ জুন প্রাথমিক, মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার নীতিগত সিদ্ধান্ত নেয় মন্ত্রণালয়। কিন্তু রবিবার (৬ জুন) মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ সার্বিক কার্যক্রম ও চলাচলে বিধিনিষেধ আরোপ করা হয় আগামী ১৬ জুন মধ্যরাত পর্যন্ত।

১৬ জুনের পর কবে নাগাদ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়া হতে পারে জানতে চাইলে শিক্ষা উপমন্ত্রী বলেন, ‘বিধিনিষেধ উঠে গেলে তার পরদিন অথবা অন্য কোনও দিন থেকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত জানানো হবে।’

উল্লেখ্য, দেশে ২০২০ সালের ৮ মার্চ করোনা রোগী শনাক্ত হলে ওই বছর ১৭ মার্চ থেকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করা হয়। সংক্রমণের বিস্তার ঠেকাতে দফায় দফায় বাড়িয়ে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান আগামী ১২ জুন পর্যন্ত বন্ধ ঘোষণা করা হয়। শিক্ষামন্ত্রী সংবাদ সম্মেলনে জানান, আগামী ১৩ জুন থেকে সীমিত পরিসরে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার নীতিগত সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।