রেলওয়েতে ৪৭ হাজার জনবল নিয়োগ প্রক্রিয়াধীন

ঢাকা : বাংলাদেশ রেলওয়ের সেবার মান বাড়াতে ৪৭ হাজার ৭০৩টি পদে নিয়োগের চূড়ান্ত অনুমােদন প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।

বৃহস্পতিবার (৩ জুন) বিকেলে জাতীয় সংসদ অধিবেশনে ২০২১-২০২২ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেট উপস্থাপনায় তিনি এ কথা জানান।

বাজেট বক্তৃতায় অর্থমন্ত্রী বলেন, অষ্টম পঞ্চবার্ষিক পরিকল্পনার আওতায় বাংলাদেশ রেলওয়ের জন্য ৭৯৮ দশমিক ৯ কিলােমিটার নতুন রেললাইন নির্মাণ, বিদ্যমান রেললাইনের সমান্তরালে ৮৯৭ কিলােমিটার ডুয়েলগেজ ডাবল রেললাইন নির্মাণ, ৮৪৬ দশমিক ৫১ কিলােমিটার রেললাইন সংস্কার, ৯টি গুরুত্বপূর্ণ রেলসেতু নির্মাণ, লেভেল ক্রসিং গেটসহ অন্যান্য অবকাঠামােগত উন্নয়ন, আইসিটি নির্মাণ, ওয়ার্কশপ নির্মাণ, এবং আধুনিকায়ন, ১৬০টি নতুন লােকোমােটিভ, এক হাজার ৭০৪টি যাত্রীবাহী কোচ, আধুনিক রক্ষণাবেক্ষণ যন্ত্রপাতি সংগ্রহ, ২২২টি স্টেশনের সিগন্যালিং ব্যবস্থার মানােন্নয়নসহ রেলওয়ে ব্যবস্থাপনা শক্তিশালীকরণ ও আর্থিক ব্যবস্থাপনা উন্নয়নের কার্যক্রম গ্রহণ করা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, ভারত-বাংলাদেশের মধ্যে ঢাকা-চিলাহাটি-হলদিবাড়ি রুটে যাত্রী পরিবহনের জন্য গত ২৭ মার্চ ‘মিতালি এক্সপ্রেস’ নামে একটি ট্রেন উদ্বোধন করা হয়েছে। এছাড়া বিভিন্ন রুটে ছয়টি নতুন ট্রেন চালু করা হয়েছে এবং ১৫০টি যাত্রীবাহী কোচ ক্রয়ের চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে। এখন রেলওয়ের সেবার মান বৃদ্ধির জন্য জনবল নিয়োগ দেয়া হবে।

অর্থমন্ত্রী বলেন, দেশের রেলখাতের চলমান বড় প্রকল্পগুলাের মধ্যে অন্যতম পদ্মা সেতু রেললিংক প্রকল্প। এ প্রকল্পের প্রায় ৪০ শতাংশ কাজ শেষ হয়েছে। চট্টগ্রাম-দোহাজারি-ঘুমধুম রেললাইন প্রকল্পের প্রায় ৫৭ শতাংশ এবং মংলা-খুলনা রেললাইন প্রকল্পের কাজ প্রায় ৭৭ দশমিক ৭৫ শতাংশ সম্পন্ন হয়েছে। এছাড়া যমুনা রেলসেতু এবং রুপসা রেলসেতু প্রকল্পের বাস্তবায়ন দ্রুতগতিতে এগিয়ে চলেছে।