ভোগ সাময়িকীর প্রচ্ছদে আসছেন মালালা

মিরর ডেস্ক : তালেবানের চোখ রাঙানিতেও দমে যাননি নারীশিক্ষা নিয়ে কাজ করা শান্তিতে নোবেলজয়ী মালালা ইউসুফজাই। শিক্ষা বঞ্চিত নারীদের নিয়ে এখনও লড়াই করছেন পাকিস্তানের সোয়াত উপত্যকার হার না মানা এই নোবেলজয়ী। এবার সেই মালালাকে দেখা যাবে বিশ্বখ্যাত ব্রিটিশ ভোগ ম্যাগাজিনের প্রচ্ছদে।সেখানে দেখা যাবে সাদা-মাটা পোশাকে সম্প্রতি অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক সম্পন্ন করা ২৩ বছর বয়সী মালালাকে।

আগামী জুলাইয়ে মালালা ইউসুফজাইকে নিয়ে প্রচ্ছদ বের করতে যাচ্ছে ভোগ সাময়িকী। লাইফ স্টাইল সাময়িকীটিতে উঠে আসবে মালালার ব্যক্তি জীবন, লেখাপড়াসহ নানা বিষয়। অক্সফোর্ডের প্রতিটি মুহূর্ত উপভোগের বিষয়টিও তিনি তুলে ধরেছেন সেই আলাপচারিতায়।

নিজের অফিসিয়াল ইনস্টাগ্রাম পেইজে ভোগ প্রচ্ছদের দুটি ছবি শেয়ার করেছেন মালালা। ছবিতে লাল, সাদা ও নীলরঙের পোশাকে দেখা গেছে তাকে। পরনে সালোয়ার কামিজ ও মাথায় ওড়না। সাক্ষাৎকারে ওড়নাকে পশতুন সংস্কৃতির প্রতীক উল্লেখ করেন তিনি। মালালা আশা প্রকাশ করে বলেন, ‘প্রচ্ছদে তাকে দেখে নারীরা জানতে পারবে তারাও নিজেদের জীবন বদলাতে পারেন।’

আলোচনার এক পর্যায়ে পরিবেশ নিয়ে কাজ করা গ্রেটা থানবার্গ ও এমা গনজালেসকে নিয়ে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেন মালালা। বলেন, ‘একজন কিশোরী হৃদয়ে যে শক্তি বহন করে তা আমি ভালো করেই উপলব্ধি করতে পারি।’

ম্যাগাজিনে যাদের সঙ্গে কাজ করেছেন সবাইকে ধন্যবাদ জানাতে ভোলেননি মালালা। নোবেলজয়ী নারী মালালার জুলাইয়ের প্রচ্ছদ নিয়ে মন্তব্য করেছেন সাবেক ফার্স্ট লেডি মিশেল ওবামা ও অ্যাপেলের নির্বাহী প্রধান। তাকে অসাধারণ মেয়ে উল্লেখ করে প্রশংসায় ভাসিয়েছেন তারা।

উল্লেখ্য, ২০১২ সালে সশস্ত্র গোষ্ঠী তালেবানের হুমকি ধামকি উপেক্ষা করেই পিছিয়ে পড়া নারীদের শিক্ষা নিয়ে প্রচার চালান কিশোরী মালালা। স্কুল থেকে ফেরার সময় তালেবানের হামলার শিকার হয়ে মাথায় গুলিবিদ্ধ হয়ে গুরুতর আহত হন। পরে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য নেওয়া হয় লন্ডনে।