নাটোরে অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূকে গলা কেটে হত্যা

নাটোর প্রতিনিধি : নাটোরের বড়াইগ্রামে আট মাসের অন্তঃসত্ত্বা শাহিনুর বেগম (৩৪) নামে এক গৃহবধূকে গলা ও হাতের রগ কেটে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। বুধবার রাতে উপজেলার ভবানীপুর জোলাপাড়া গ্রামে নিজ বাড়ির শয়ন কক্ষে তাকে হত্যা করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (৩ জুন) সকালে পুলিশ, সিআইডি ও পিবিআই টিম ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে রহস্য উদঘাটনে অনুসন্ধানে মাঠে নেমেছে। শাহিনুর বেগম ওই এলাকার রাশিদুল ইসলামের স্ত্রী।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, বুধবার রাতে উপজেলার ভবানীপুর গ্রামের ঐতিহ্যবাহী গ্রামীণ সাংস্কৃতিক মাদারের গান চলছিলো। নিহতের দুই সন্তান শাশুড়িসহ পরিবারের সকলেই গানের অনুষ্ঠানে থাকায় এক বছরের শিশু সন্তান নিয়ে ফাঁকা বাড়ির নিজ ঘরেই ঘুমিয়ে ছিলেন শাহিনুর। অনুষ্ঠান শেষে বাড়িতে ফিরে নিহতের শিশুকন্যা তার মায়ের রক্তাক্ত লাশ দেখে চিৎকার করে ওঠে।

পরিবারের অন্য সদস্যসহ এলাকাবাসী এগিয়ে এসে শাহিনুরের রক্তাক্ত মৃতদেহ পড়ে থাকতে দেখে পুলিশে খবর দেয়। নিহতের স্বামী রাশেদ কাজের সন্ধানে এলাকার বাইরে ছিলেন বলে জানায় পরিবারের সদস্যরা।

এদিকে ঘটনার খবর পেয়ে তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন বড়াইগ্রাম সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার খায়রুল ইসলাম, বড়াইগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ারুল ইসলাম, ওয়ালিয়া পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ ফারুক হোসেন তালাশসহ পুলিশের অন্য কর্মকর্তারা।

পরে বৃহস্পতিবার সকালে সিআইডি ও ও পিবিআই টিম এসে প্রাথমিক আলামত সংগ্রহের পর পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নাটোর সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।বড়াইগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ারুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, পুলিশ, সিআইডি ও পিবিআই টিম রহস্য উদঘাটনে তদন্ত শুরু করেছে।