ক্ষমতা হারাতে চলেছেন নেতানিয়াহু

Israeli Prime Minister Benjamin Netanyahu attends the weekly cabinet meeting at his office in Jerusalem, Israel, Sunday, May 5, 2019. (Abir Sultan/Pool Photo via AP)

মিরর ডেস্ক : টানা ১২ বছরের শাসন শেষ হতে চলছে ইরসায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুর। নেতানিয়াহুর মেয়াদের ইতি টানতে একটি ঐক্য সরকারে সায় দিয়েছেন দেশটির উগ্র-ডানপন্থী দলের নেতা নাফতালি বেনেট। রবিবার তার পদক্ষেপের মধ্য দিয়ে ইসরায়েলের সবচেয়ে দীর্ঘ সময়ের প্রধানমন্ত্রীর ক্ষমতার অবসান হতে যাচ্ছে।

ইসরায়েলি পার্লামেন্টে ছয় আসন পাওয়া রক্ষণশীল ইয়ামিনা পার্টির প্রধান নাফাতলি বেনেটের সঙ্গে লাপিদ জোট সরকার গঠনের জন্য আলোচনা করছিলেন। লাপিদের সঙ্গে জোট সরকার গঠনে সম্মতির বিষয়ে বেনেট রবিবার অবস্থান জানিয়েছেন। তবে এর আগে বেনেটকে নিজ দলীয় নেসেট সদস্যদের লাপিদের সঙ্গে জোট গঠনের বিষয়ে সম্মত করাতে হবে।

বিভিন্ন আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে বলা হয়েছে, ইয়াইর লাপিড একটি জোট গঠনের প্রায় শেষপর্যায়ে। এ অবস্থায় নাফতালি বেনেট তার নিজের দলের এমপিদের সঙ্গে বৈঠক করার কথা। তাদের মতামত নেবেন যে বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুর বিরুদ্ধে বাম, মধ্য এবং ডানপন্থিদের সমন্বয়ে গড়ে ওঠা এই জোটে যোগ দেবেন কি না। যদি এমন জোট হয়ও, তবে তা হতে পারে ভঙ্গুর।

ফলে এতে পার্লামেন্টে আরব সদস্যদের সমর্থন প্রয়োজন হবে, যাদের রয়েছে ইয়ামিনা দলের সঙ্গে মতের বিস্তর পার্থক্য। সাম্প্রতিক সময়ে জনসমক্ষে নীরবতা বজায় রাখছেন নাফতালি বেনেট। অন্যদিকে লিকুদ পার্টির নেতা বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু তার নিজের মেয়াদের ইতি ঘটতে পারে বলে টুইটারে ইঙ্গিত দিয়েছেন শুক্রবার। তিনি লিখেছেন, রিয়েল অ্যালার্ট। বিপজ্জনক বামপন্থি একটি প্রশাসন সামনে এগিয়ে আসছে।

ইয়ামিনা দল থেকে শনিবার দিনশেষে ঘোষণা দিয়েছে যে, নাফতালি বেনেট আজ রোববার নিজ দলের এমপিদের সঙ্গে বৈঠক করবেন। তিনি সাবেক প্রতিরক্ষামন্ত্রী।

৭১ বছর বয়সি ডানপন্থি নেতা বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু ২০০৯ সাল থেকে টানা ক্ষমতায়। তার এ সময়ে ব্যাপক দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে। এসব অভিযোগের বিচার চলছে আদালতে। তবে তিনি নিজে এসব দুর্নীতির অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। সেই বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুকে ক্ষমতা থেকে সরিয়ে দেওয়ার জন্য এবার চেষ্টা করছেন নাফতালি বেনেট।