চীনারাই দেখলো না ক্লোয়ির অস্কার!

মিরর ডেস্ক : অন্য কোনও দেশ হলে যেখানে ধুন্দুমার কাণ্ড ঘটে যেতো, সেখানে ক্লোয়ি ঝাওকে নিয়ে কোনও মাতামাতিই নেই চীনে। এমনকি দেশটির বাসিন্দারা তাদের ঘরের মেয়ের হাতে ট্রফি ধরার দৃশ্যটা লাইভ দেখা থেকেও বঞ্চিত হলো।

রয়টার্সের খবরে জানা গেলো, চীনের সম্প্রচার কর্তৃপক্ষ নাকি মার্চেই ঠিক করে রেখেছিল, স্ট্রিমিং প্লাটফর্মগুলোতে এবারের অস্কার তারা দেখাবে না। কিন্তু নিদেনপক্ষে টিভিতে দেখানোর কথা থাকলেও সেটাও হলো না। হংকংয়ের জনপ্রিয় চ্যানেল টিভিবিও হুট করে সিদ্ধান্ত নিলো এবারের অস্কার তারা সম্প্রচার করবে না।

অথচ গত ৫৯ বছর ধরে ঠিকই দেখিয়ে আসছিল অস্কারের অনুষ্ঠান। ক্লোয়ি ঝাও এমন কী করে বসলেন যে এতো ক্ষোভ কর্তৃপক্ষের?

ওয়াশিংটন পোস্টের এক খবরে জানা গেলো, এবারের সেরা পরিচালক হিসেবে অস্কার পাওয়া ক্লোয়ি ঝাও নাকি অনেক অনেক আগে চীন নিয়ে ‘আপত্তিকর’ কিছু মন্তব্য করেছিলেন স্যোশাল মিডিয়ায়। হতে পারে তখন থেকেই ভেতরে ভেতরে জ্বলছিল দেশটির শাসকরা। এবার মওকা বুঝে সেই ঝালটাই উগরে দিলেন অস্কার আসরে!

ক্লোয়ির অবশ্য এ নিয়ে কোনও মন্তব্য বা মাথাব্যথা নেই। অস্কার অনুষ্ঠানেও তিনি নিজের জন্মভূমি চীনের প্রশংসাই করেছেন। ছোটবেলার স্মৃতিচারণ করেছেন হাসিমুখে।

১৪ বছর বয়স পর্যন্ত বেইজিংয়েই ছিলেন ক্লোয়ি। পরে ইংল্যান্ড ঘুরে নিউ ইয়র্কের ফিল্ম স্কুলে আসেন পড়তে। এখন অবশ্য রাজনীতি নিয়ে ভাবার সময় নেই তার। হাতে মারভেল স্টুডিওর বড় বাজেটের অ্যাকশন মুভি ‘ইটারনালস’। এর বাইরে ড্রাকুলা চরিত্র নিয়ে ওয়েস্টার্ন-সায়েন্স ফিকশন একটি ছবির কাজও আছে।