ছেলের ছোড়া এসিড ঝলসালো পরিবারের ৫ সদস্যের শরীর

ঢাকা: রাজধানীর লালবাগের একটি বাসায় একই পরিবারের পাঁচ সদস্যকে এসিডে ঝলসে দিয়েছেন ওই পরিবারের মাদকসক্ত এক ছেলে।পরে নিজেই নিজের শরীরে এসিড ঢেলে দিয়েছেন আলী হোসেন (৪০)।

মঙ্গলবার (২০ এপ্রিল) ভোর পৌনে ৬টার দিকে লালবাগ এলাকার কাশ্মিরীটোলার বাসায় ঘটনাটি ঘটে। দগ্ধদের শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

দগ্ধরা হলেন-আলী হোসেনের মা মোমেনা বেগম (৭০), বোন জামিলা আক্তার (৩০), দুই ভাই আনোয়ার হোসেন (৫২), ইকাবাল হোসেন (৪৫) ও ভাগিনা সালেহীন (২০)।

লালবাগ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) অমিতব দর্জি চন্দ্র ওই পরিবারের বরাত দিয়ে জানান, আলী হোসেন মাদক সেবন করেন। তিনি ব্যাটারি তৈরির একটি কারখানায়ও কাজ করতেন। ভোরে পরিবারের সঙ্গে তার ঝগড়া লাগে। একপর্যায়ে আলী হোসেন ব্যাটারিতে ব্যবহৃত এসিডের পানি তার মাসহ পরিবারের পাঁচজনের শরীর ছুড়ে মারেন। এতে তারা দগ্ধ হয় এবং আলী হোসেন নিজের শরীরেও এসিড ঢেলে দেন। তদেরকে সকালে চিকিৎসার জন্য শেখ হাসিনা বার্ন ইউনিটে নিয়ে আসে। জামিলা আক্তার, ইকবাল ও সালেহীনের চোখে এসিড লেগেছে। তাদের তিনজনকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে আগারগাঁও চক্ষু হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। মোমেনা বেগমকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে এবং আলী হোসেনকে পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে।

এসআই আরও জানান, পরিবারের সবাই চিকিৎসা নিয়ে ব্যস্ত আছেন। তাদের পক্ষ থেকে কোনো অভিযোগ পাওয়া যায়নি। তবে, আলী হোসেনকে আমাদের হেফাজতে রেখে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।