ফ্লাইট বাতিল, এয়ারপোর্ট থেকে হোটেলে ফিরলেন সালাউদ্দিনরা

মিরর স্পোর্টস : সোমবার আর ঢাকায় ফেরা হলো না বাফুফে সভাপতি কাজী মো. সালাউদ্দিন ও অন্যান্য কর্মকর্তাদের। বাংলাদেশ বিমানের উড়োজাহাজের জন্য অপেক্ষা করে বিমানবন্দরে বসেই টিভিতে বাংলাদেশ ও নেপালের মধ্যেকানর ফাইনাল দেখেছেন তারা। পরে ফ্লাইট বাতিলের খবর জানার পর ফিরে যান হোটেলে।

ফাইনাল জিতলে ২৫ হাজার মার্কিন ডলার- জাতীয় ফুটবল দলের জন্য এই বোনাস ঘোষণা করে কাঠমান্ডু থেকে ঢাকায় রওয়ানা দিয়েছিলেন বাফুফে সভাপতি কাজী মো. সালাউদ্দিন।

কিন্তু ফ্লাইট জটিলতায় সফরসঙ্গীসহ কাজী মো. সালাউদ্দিন দীর্ঘ সময় অপেক্ষা করছেন কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন বিমানবন্দরে। ঢাকায় এসে টিভিতে খেলা দেখার ইচ্ছে ছিল বাফুফে সভাপতির। কিন্তু নেপালে অবস্থান করেও বিমানবন্দরে টিভিতে খেলা দেখতে হয় তাকে। ঢাকায়ও আসতে পারেননি, দলও হেরেছে ফাইনালে। ডাবল মন খারাপ করেই হোটেলে ফিরেছেন বাফুফে বিগ বস।

বাংলাদেশ বিমানের যে উড়োজাহাজটি সকালে কাঠমান্ডু এসেছিল তা অবতরণ করতে পারেনি ঘন কুয়াশার কারণে। উড়োজাহাজ ঢাকায় ফিরে গেছে। আবার কখন আসবে তা নিশ্চিত ছিল না। সবার ইমিগ্রেশন সম্পন্ন হওয়ায় ওই সময় বিমানবন্দর থেকে বেরিয়ে স্টেডিয়ামে গিয়ে খেলা দেখার সুযোগও ছিল না। টিভিতে সবাই বাংলাদেশ ও নেপালের ফাইনাল দেখেছেন।

বিমানবন্দরে বাফুফে সভাপতির সঙ্গে ছিলেন সহসভাপতি আতাউর রহমান মানিক, সাধারণ সম্পাদক মো. আবু নাইম সোহাগ, নির্বাহী সদস্য মাহফুজা আক্তার কিরণ, নুরুল ইসলাম নুরু, বাফুফের ডেভেলপমেন্ট কমিটির সদস্য সৈয়দ রিয়াজুল করীম, বাফুফে সাধারণ সম্পাদকের স্ত্রী এবং একজন গণমাধ্যমকর্মী।‘

আজ না ফিরলে ফ্লাইট তিনদিন পর ছিল। তাই আমরা সোয়া ১টার ফ্লাইটে ঢাকা ফেরার জন্য বিমানবন্দরে এসেছিলাম। এখানেই খেলা দেখেছি টিভিতে। আজকের ফ্লাইট বাতিল হওয়ায় আমরা হোটেলে ফিরছি’- নেপাল থেকে বলছিলেন বাফুফে সাধারণ সম্পাদক মো. আবু নাইম সোহাগ।