দিনাজপুরে নির্যাতনের ঘটনায় গৃহবধূর আত্মহত্যা : আটক ১

বোচাগঞ্জ (দিনাজপুর) প্রতিনিধি : দিনাজপুরের বোচাগঞ্জ উপজেলা পল্লীতে সালিশি বৈঠকের নামে গৃহবধূর ওপর মানসিক নির্যাতনের ঘটনায়, ৪ সন্তানের জননী নুরুন নাহার বেগম (৩৫) আত্মহত্যা করেছেন। রবিবার ভোরে নুরুন নাহারের ঝুলন্ত লাশ দেখতে পেয়ে স্থানীয়রা থানায় খবর দিলে, পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে। এ ঘটনায় সকালেই তৈয়ব আলী নামে একজনকে আটক করেছে পুলিশ। এবং পলাতক রয়েছে তৈয়ব আলীর দুই ছেলে মুনসুর ও মান্নান।

জানা যায়, ছাগলে গাছ খাওয়াকে কেন্দ্র করে বোচাগঞ্জ উপজেলার পশ্চিম মোল্লাপাড়া গ্রামের তৈয়ব আলী ও তার দুই ছেলে মুনসুর এবং মান্নানের সাথে কথা কাটাকাটি হয় নুরুল ইসলামের স্ত্রী নুরুন নাহারের। শনিবার সন্ধ্যায় উভয়ের উপস্থিতিতে এক সালিশি বৈঠক হয়। সেখানে নুরুন নাহার বেগমকে দোষারোপ করে মানসিক নির্যাতন চালানো হয় বলে জানান এলাকাবাসী।

এ ব্যাপারে বোচাগঞ্জ থানার ওসি নবী ইসলাম জানান, সালিশি বৈঠকের নামে নির্যাতনের ঘটনায় নুরুন নাহার আত্মহত্যা করেছেন বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। লাশ সুরতহাল রিপোর্টের জন্য এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। বিষয়টি গভীরভাবে খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে জানান তিনি। এ ঘটনায় নিহতের স্বামী থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।