চলে গেলেন স্বাধীন বাংলা বেতারকেন্দ্রের প্রথম নারীশিল্পী নমিতা ঘোষ

মিরর বিনোদন : না ফেরার দেশে চলে গেলেন স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের প্রথম নারীশিল্পী নমিতা ঘোষ। দীর্ঘদিন ধরে ক্যান্সারে ভুগছিলেন তিনি। সাথে ছিলো চোখের সমস্যা। গেলো বছরে এই কণ্ঠযোদ্ধার চিকিৎসার জন্য  ২১ লাখ টাকা অনুদান দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। কিন্তু সব চেষ্টাকে ব্যর্থ করে দিয়ে বিদায় নিলেন তিনি।

বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে মারা গেলেন এই কিংবদন্তি শিল্পী। তার বোন কবিতা ঘোষ এ তথ্য গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, সম্প্রতি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হন নমিতা ঘোষ। তাকে রাজধানীর পপুলার মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিলো। সেখানেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় শুক্রবার দিবাগত রাত ১০টায় তার মৃত্যু হয়। মৃত্যুর সময় নমিতা ঘোষের বয়স হয়েছিল ৬৫ বছর।

মৃত্যুর পর শনিবার বেলা ১১টায় রাজধানীর পোগোজ স্কুল প্রাঙ্গণে স্বাধীনতা যুদ্ধের এই কণ্ঠযোদ্ধাকে গার্ড অব অনার দেওয়া হয়েছে। সবশেষে ১২ মার্চ টেলিভিশনের একটি গানের আয়োজনে অংশ নিয়েছিলেন তিনি। গান গেয়ে মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য অর্থ সংগ্রহ করেছিলেন এই একাত্তরের কণ্ঠযোদ্ধা। মাত্র ১৪ বছর বয়সে স্বাধীন বাংলা বেতারকেন্দ্রে যোগ দিয়ে স্বাধীনতা সংগ্রামে পরোক্ষভাবে অংশগ্রহণ করেন তিনি।