পাবদা মাছ চাষে প্রয়োজনীয় কিছু প্রশ্নের উত্তর

মিরর ডেস্ক : পাবদা মাছ চাষে প্রয়োজনীয় কিছু প্রশ্নের উত্তর মৎস্য চাষিদের ভালোভাবে জেনে রাখা দরকার। এখনকার দিনে ব্যাপকহারে পুকুরে মাছ চাষ করা হচ্ছে। চাষ করা এসব মাছের মধ্যে পাবদা মাছ অন্যতম। আজ আমরা জানবো পাবদা মাছ চাষে প্রয়োজনীয় কিছু প্রশ্নের উত্তর সম্পর্কে-

পাবদা মাছ চাষে প্রয়োজনীয় কিছু প্রশ্নের উত্তর :

প্রশ্ন : পাবদা মাছ কোন ধরনের পুকুরে চাষ করা যায়?

উত্তর : সাইপ্রিনাস ও মৃগেল মাছ বাদ দিয়ে অন্য পোনা মাছের সঙ্গে পাবদা মাছও পুকুরে চাষ করা হয়।

প্রশ্ন : পাবদা মাছের প্রজনন প্রক্রিয়া কেমন?

উত্তর : পাবদা মাছের স্বাভাবিকভাবেই প্রজনন হয়। এই মাছ ২০ গ্রাম থেকে ৪০ গ্রাম হলেই এরা প্রজননক্ষম হয়ে পড়ে, তখন এরা বিল থেকে পাশের নদীতে জড়ো হয় এবং ডিম পাড়ে।

প্রশ্ন : পাবদা মাছ ইদানিং বাজারে কম পাওয়া যায়। এর কারণ কী? এই মাছ কোথায় থাকে?

উত্তর : মাছটি হারিয়ে যাওয়া মাছের মধ্যে পড়ে। পাবদা আসলে নদীর মাছ। কিন্তু বর্ষার সময় যে সমস্ত নদীর সঙ্গে বড় বড় জলাশয়ের যোগাযোগ রয়েছে সেখানে এসেও পাবদা মাছ ঠাঁই নেয়। আমাদের দেশে কোনও কোনও বিলে ও বড় বড় জলাশয়ে এই মাছ পাওয়া যায়।

প্রশ্ন : একটি প্রজননক্ষম পাবদা মাছে কী পরিমাণ ডিম পাওয়া যায়?

উত্তর : প্রতি ১০০ গ্রাম দেহের ওজনে এদের ৩৫,০০০-৪০,০০০ ডিম পাওয়া যেতে পারে।

প্রশ্ন : পাবদা মাছের খাদ্য কী?

উত্তর : পাবদা মাছ হচ্ছে মত্স্যভুক মাছ। এরা খায় ছোট চিংড়ি, শামুক, বিভিন্ন জলজ পোকা।

প্রশ্ন : পাবদা মাছের চাষের পদ্ধতি কী রকম হবে?

উত্তর : পাবদা চাষের জন্য প্রথমেই পোনা মাছ চাষের পদ্ধতি অনুযায়ী পুকুর তৈরি করতে হবে। প্রতি বিঘা পুকুরে ২২৫-২৫০ কিলোগ্রাম গোবর সার প্রয়োগ করতে হবে। ৩-৪ দিনের মধ্যেই খাদ্যকণা উৎপন্ন হলে পাবদার চারাপোনা পুকুরে ছাড়তে হবে।