ঘুমের ওষুধ খেয়ে চিকিৎসকের আত্মহত্যা

রাজশাহী প্রতিনিধি : রাজশাহীতে অতিরিক্ত ঘুমের ওষুধ খেয়ে এক চিকিৎসকের মৃত্যু হয়েছে। চিকিৎসকের নাম লুৎফর রহমান (২৭)। তিনি দূর্গাপুর উপজেলার ভবানিপুর গ্রামের বাসিন্দা।

রাজশাহী মেডিকেল কলেজের এমবিবিএস ৫৩তম ব্যাচের শিক্ষার্থী ছিলেন লুৎফর রহমান। তিনি ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজে হেপাটোলজি বিষয়ে এমডি কোর্স সম্পন্ন করেছেন।

সোমবার (২২ মার্চ) ভোর পৌনে ৫টার দিকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। তার মরদেহ রামেক হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে হাসপাতাল পুলিশ বক্সের ইনচার্জ সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) রুহুল আমিন বলেন, দূর্গাপুর ভবানিগঞ্জ থেকে ভোর সোয়া ৪টার দিকে তাকে অচেতন অবস্থায় রামেক হাসপাতালে নিয়ে আসেন তার স্বজনরা। তারা জানান অতিরিক্ত ঘুমের ওষুধ সেবনে তিনি (লুৎফর রহমান) অসুস্থ হয়ে পড়েন। ঘটনা টের পেয়ে তারা হাসপাতালে নিয়ে আসেন।

তিনি জানান, হাসপাতালে নিয়ে আসা হলে জরুরি বিভাগ থেকে দ্রুত তাকে হাসপাতালের ১৩ নম্বর ওয়ার্ডে নেওয়া হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় ভোর পৌনে ৫টার দিকে তিনি মারা যান। পরে মরদেহ হাসপাতাল মর্গে নেওয়া হয়।

এ বিষয়ে রামেক হাসপাতালের পরিচালক ডা. সাইফুল ফেরদৌস জানিয়েছেন, অতিরিক্ত ঘুমের ওষুধ খেয়ে তিনি আত্মহত্যা করেছেন। তবে আত্মহত্যার কারণটা কি তা জানা যায়নি। পুলিশ বিষয়টি খতিয়ে দেখছে।

দুর্গাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাসমত আলী মুঠোফোনে বলেন, এমন একটি ঘটনা শুনেছি। তবে এ বিষয়ে থানায় কেউ কোনো অভিযোগ করেননি।