প্রথম যাঁরা মুসলিম হয়েছিলেন

মিরর ডেস্ক : কিছুদিনের বিরতির পর যখন ওহির ধারা চালু হলো তখন রাসুলুল্লাহ (সা.)-কে ইসলাম প্রচারের নির্দেশ দেওয়া হয়। ইরশাদ হয়, ‘হে বস্ত্রাবৃত রাসুল, উঠুন, সতর্ক করুন, আর আপনার রবের শ্রেষ্ঠত্ব ঘোষণা করুন, স্বীয় পরিধেয় বস্ত্র পবিত্র রাখুন এবং অপবিত্রতা থেকে দূরে থাকুন।’ (সুরা মুদ্দাসসির, আয়াত : ১-৫)

ইসলাম প্রচারের এই নির্দেশ আসার পর মহানবী (সা.) নিজ পরিবার ও ঘনিষ্ঠদের দাওয়াতি কার্যক্রম শুরু করেন। তিনি অত্যন্ত গোপনে তাঁর দাওয়াতি কার্যক্রম পরিচালনা করতে থাকেন। এ সময় বেশ কয়েকজন নারী ও পুরুষ ইসলাম গ্রহণ করেন। পবিত্র কোরআনে যাঁদেরকে ‘সাবিকুনাল আউলুন’ (প্রথমদিকের অগ্রগামী) আখ্যা দেওয়া হয়েছে। সিরাত গবেষকদের বর্ণনা মতে, এমন নারী ও পুরুষের সংখ্যা সব মিলিয়ে ৪০ থেকে ৫০ জনের মধ্যে। (আর-রাহিকুল মাখতুম, পৃষ্ঠা ৯০-৯১)

সর্ব সম্মতিক্রমে রাসুলুল্লাহ (সা.)-এর আহ্বানে সর্বপ্রথম সাড়া দেন খাদিজাতুল কুবরা (রা.)। ড. আলী মুহাম্মদ সাল্লাবির বর্ণনা মতে খাদিজা (রা.)-এর পর ইসলাম গ্রহণের ধারাক্রমটি নিম্নরূপ—২. আলী ইবনে আবি তালিব (রা.)—কিশোরদের মধ্যে তিনিই প্রথম ইসলাম গ্রহণ করেন, ৩. রাসুলুল্লাহ (সা.)-এর পালকপুত্র জায়িদ বিন সাবিত (রা.), ৪. রাসুলুল্লাহ (সা.)-এর চার কন্যা তথা জয়নব, উম্মে কুলসুম, ফাতিমা ও রুকাইয়া (রা.), ৫. আবু বকর (রা.)। আবু বকর সিদ্দিক (রা.)-এর প্রচেষ্টায় আরো পাঁচজন পুরুষ ইসলামের ছায়াতলে আশ্রয় গ্রহণ করেন। তাঁরা হলেন উসমান ইবনে আফফান, আবদুর রহমান ইবনে আউফ, সাদ ইবনে আবি ওয়াক্কাস, জুবায়ের ইবনে আউয়াম, তালহা ইবনে উবাইদুল্লাহ (রা.)। (আস-সিরাতুন-নাবাবিয়্যা, পৃষ্ঠা ৮৬-৯০)

প্রথম পর্যায়ে ইসলাম গ্রহণকারী আরো কয়েকজন হলেন, ‘আবু উবাইদা ইবনুল জাররাহ, আবু সালামা ইবনে আবদুল আসাদ, আরকাম ইবনে আবুল আরকাম, উসমান ইবনে মাজউন, তাঁর দুই ভাই কুদামা ও আবদুল্লাহ, উবাইদা ইবনে হারিস, সাঈদ ইবনে জায়িদ, ওমর (রা.)-এর বোন ফাতিমা, আসমা বিনতে আবু বকর, খাব্বাব ইবনে আরাত, উমায়ের ইবনে আবু ওয়াক্কাস, আবদুল্লাহ ইবনে মাসউদ, মাসউদ ইবনে কারি, সালিত ইবনে আমর, আইয়াশ ইবনে আবু রাবিয়া, আসমা বিনতে সুলামা, খুনাইস ইবনে হুজাফা, আমের ইবনে রাবিয়া, আবদুল্লাহ ইবনে জাহাশ, তার ভাই আবু আহমদ, জাফর ইবনে আবি তালিব, আসমা বিনতে উনাইস, হাতিব ইবনে হারিস, ফাতিমা বিনতে মুজাল্লাল, হুতাব ইবনে হারিস, ফুকাইহা বিনতে ইয়াসার, মা’মার ইবনে হারিস, সায়িব ইবনে উসমান, মুত্তালিব ইবনে আজহার, রামলা বিনতে আবু আউফ, নাঈম ইবনে আবদুল্লাহ, আমের ইবনে ফুহাইর, খালিদ ইবনে সাঈদ, আমিনা বিনতে খালাফ, হাতিব ইবনে আমর, আবু হুজাইফা ইবনে উতবা, ওয়াকিদ ইবনে আবদুল্লাহ, বুকাইরের পুত্র খালিদ, আমের, আকিল, ইয়াস, আম্মার ইবনে ইয়াসার, সুহাইব ইবনে সিনান (রা.) প্রমুখ। (সিরাতে ইবনে হিশাম, পৃষ্ঠা ৫৯-৬০)

গ্রন্থনা : আতাউর রহমান খসরু।