শ্যামাপ্রসাদ না থাকলে আমাদেরকে বাংলাদেশে থাকতে হতো: শুভেন্দু

মিরর ডেস্ক : তৃণমূল কংগ্রেস ক্ষমতায় ফিরলে পশ্চিমবঙ্গ কাশ্মিরে পরিণত হবে উল্লেখ করে কটাক্ষ করেছেন বিজেপি প্রার্থী শুভেন্দু অধিকারী। শুধু তাই নয়, শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায় না থাকলে ভারতীয়দেরকে বাংলাদেশে বসবাস করতে হতো বলেও উল্লেখ করেন তিনি। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম দ্য হিন্দুস্তান টাইমস-এর প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।

একসময় তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ের সহযোগী ছিলেন শুভেন্দু। সম্প্রতি তিনি বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন। শুধু তাই নয়, পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভা নির্বাচনে নন্দীগ্রাম আসন থেকে মমতার বিরুদ্ধেই প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন তিনি। রবিবার বিজেপির ব্রিগেড সমাবেশে উপস্থিত থাকতে শনিবার থেকেই কলকাতায় রয়েছেন শুভেন্দু। এদিন বেহালায় এক সমাবেশে অংশ নেন তিনি।

তৃণমূল কংগ্রেসকে আক্রমণ করে এ বিজেপি নেতা বলেন, ‘‌শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায় না থাকলে দেশটা ইসলামিক রাষ্ট্রে পরিণত হত। আজ আমাদেরকে বাংলাদেশে বাস করতে হত। তৃণমূল কংগ্রেস ফের ক্ষমতায় ফিরলে এই বাংলাকে কাশ্মিরে পরিণত করবে।’‌

এদিকে কাশ্মিরকে জড়িয়ে শুভেন্দুর বিতর্কিত মন্তব্যের জবাব দিয়েছেন রাজ্যটির প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ওমর আব্দুল্লাহ। তিনি বলেন, ‌আপনাদের মতো বিজেপি নেতারাই তো দাবি করে থাকেন, ২০১৯ সালের অগস্ট মাসের পর কাশ্মীর স্বর্গে পরিণত হয়েছে। সেক্ষেত্রে বাংলা কাশ্মীরে পরিণত হলে অসুবিধা কোথায়?‌’‌ ওমর আবদুল্লাহ আরও বলেন, ‘‌বহু বাঙালি আমাদের এখানে বেড়াতে আসেন। এই কাশ্মিরকে ভালবাসেন। তাই এই নিম্নরুচি–নির্বোধ মন্তব্যের জন্য আপনাকে ক্ষমা করলাম।’‌

উল্লেখ্য, আজকের যে বিজেপি, তার সূচনা হয়েছিল পশ্চিম বাংলার প্রয়াত রাজনীতিক শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের হাতে। স্বাধীনতার পর নেহেরুর মন্ত্রিসভায় ভারতের প্রথম শিল্পমন্ত্রী হয়েছিলেন কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক এই উপাচার্য। মন্ত্রিসভায় যোগ দিলেও সবসময় কংগ্রেসের বিরোধিতা করেছেন। তারপর ১৯৫১ সালে নেহেরুর সাথে মনোমালিন্য চরমে ওঠায় মন্ত্রিসভা থেকে পদত্যাগ করে পরের বছরই অর্থাৎ ১৯৫২ সালের ২৬শে জুন কট্টর হিন্দু সংগঠন আরএসএসের (রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘ) সহযোগিতায় জনসংঘ নামে একটি রাজনৈতিক দল গঠন করেন। ওই জনসংঘই পরে ভারতীয় জনতা পার্টি বা বিজেপি নাম নেয়। হিন্দু কট্টরপন্থীদের কাছে তিনি পূজনীয় এক নেতা।