দিনাজপুরে আইনজীবী সমিতির দু’গ্রুপের সংঘর্ষ : সম্পাদকসহ আহত ১০

স্টাফ রিপোর্টার, দিনাজপুর : দিনাজপুর জেলা আইনজীবী সমিতির বর্তমান ও সাবেক কমিটির দুই গ্রুপের সদস্যদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদকসহ অন্তত ১০ জন আইনজীবী আহত হয়েছেন। এদের মধ্যে দুজনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এসময় সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য ও আইনজীবী সমিতির সদস্য জাকিয়া তাবাসসুম জুঁইকেও লাঞ্ছিত করা হয়। বৃহস্পতিবার দুপুর সাড়ে ১২টা থেকে বিকেল সাড়ে ৪টা পর্যন্ত পাঁচ ঘণ্টাব্যাপী দিনাজপুর জেলা আইনজীবী সমিতির সামনে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষে জেলা আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক এড. সাইফুল ইসলাম, সদস্য সারওয়ার আহমেদ বাবু, রাজিউর রহমান, হাবিবুল্লাহসহ ১০ জন আইনজীবী আহত হয়েছেন। আহতদের মধ্যে সারওয়ার আহমেদ বাবু ও হাবিবুল্লাহকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ সূত্র জানায়, বেলা ১১টায় দিনাজপুর আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম কার্যালয়ে যান। এসময় সমিতির আগের কমিটির নেতারা সাধারণ সভাস্থলে গিয়ে বাধা দেন। এরপর দুই গ্রুপের সংঘর্ষ বেধে যায়। দফায় দফায় সংঘর্ষ চলতে থাকে। সংঘর্ষে বহিরাগতরাও অংশ নেয়। বিকেল সাড়ে ৪টা পর্যন্ত সংঘর্ষ চলে। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

জেলা জজ কোটের বিশেষ সরকারি কৌঁসুলি (পিপি) পারভেজ হোসেন জানান, গঠনতন্ত্র অনুযায়ী প্রতি বছর চৈত্র মাসের প্রথম শনিবার আইনজীবী সমিতির নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। পহেলা বৈশাখ থেকে নতুন কমিটির কার্যক্রম শুরু হয়। গত বছরের সেপ্টেম্বরে জেলা আইনজীবী সমিতির নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। তাই বর্তমান কমিটির মেয়াদ এক বছর বাড়ানো ও সাবেক কমিটির ৬ কোটি টাকার দুর্নীতিসহ ৯টি এজেন্ডা নিয়ে বৃহস্পতিবার জেলা আইনজীবী সমিতির সাধারণ সভা হয়। কিন্তু সাবেক কমিটির নেতারা সাধারণ সভায় এসে বাধা দেন।

জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক তহিদুল ইসলাম বলেন, ‘গঠনতন্ত্র অনুযায়ী চৈত্র মাসে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়ে থাকে। গত বছর করোনার কারণে নির্বাচনে পাঁচ মাস পিছিয়ে গত বছরের সেপ্টেম্বরে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। বর্তমান কমিটি তাদের মেয়াদ বাড়ানোর কোনো এখতিয়ার রাখে না। তাই এই অবৈধ সাধারণ সভা আমরা মানি না। আমরা এর প্রতিবাদ করতে গেলে তারা আমাদের ওপর হামলা করে।’

আইনজীবী সমিতির বর্তমান সাধারণ সম্পাদক এড. সাইফুল ইসলাম বলেন, ‘নির্বাচনে পরাজয় হওয়ার পর থেকে তারা মিটিং করতে বাধা দিয়ে আসছেন। যাতে করে তাদের দুর্নীতির বিষয়গুলো আমরা তুলে না নিয়ে আসতে পারি। বৃহস্পতিবার আইনজীবী সমিতির সভা চলছিল। সাধারণ সভায় ৬ কোটি টাকার দুর্নীতিসহ ৯টি এজেন্ডা উত্থাপন করা হয়। সাধারণ সভা চলাকালে সাবেক কমিটির সভাপতি এড. নুরুজ্জামান জাহানী ও সাবেক সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট তহিদুল হক সরকার এসে হামলা করলে সংর্ঘষ শুরু হয়।’

সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য ও আইনজীবী সমিতির সদস্য জাকিয়া তাবাসসুম জুঁই বলেন, দুই গ্রুপের সংর্ঘষ চলাকালে আমাকেও ধাক্কাধাক্কি করা হয়েছে।

দিনাজপুর কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি-তদন্ত) আসাদুজ্জামান জানান, আইজীবী সমিতিতে সংঘর্ষের ঘটনা একজন বহিরাগতকে আটক করা হয়েছে। সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা পর্যন্ত কোন পক্ষ থেকেই মামলা করা হয়নি বলে জানান তিনি।