দিনাজপুরে ভুট্টার ফুলে দুলছে কৃষকের স্বপ্ন

স্টাফ রিপোর্টার, দিনাজপুর : দিনাজপুরে ভুট্টার বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা রয়েছে। অন্যান্য ফসলের চেয়ে ভুট্টার ফলন বেশি হওয়াতে কৃষকরা ধান গমের পাশাপাশি ভুট্টা চাষে মনোযোগী হয়েছে। মাঠে ভুট্টার ফুলে বাতাসে দুলছে কৃষকের স্বপ্ন।
সরজমিনে গিয়ে দেখা যায়, দিনাজপুরের ১৩ উপজেলার প্রত্যন্ত গ্রাম অঞ্চলে সবুজে ছেয়ে গেছে ভুট্টার মাঠ। ধানের চেয়ে কম খরচে হয় ভুট্টার চাষ। একদিকে খরচ কম অন্যদিকে উৎপাদনে ধানের চেয়ে ভুট্টার ফলন প্রায় দ্বিগুণ। প্রতি হেক্টর জমিতে ভুট্টা চাষে কৃষকের খরচ ২০ থেকে ২৫ হাজার টাকা। প্রতি হেক্টর জমিতে ৮০ থেকে ৯০ মণ ভুট্টা কৃষকরা ঘরে তুলতে পারেন।
বিরল উপজেলার ফরাক্কাবাদ গ্রামের কৃষক আজিজার রহমান ও রমজান আলী বলেন, কৃষি অফিসের জনবল বৃদ্ধি করে ভুট্টা চাষে আরও সেবা দিলে, তারা আরও বেশি ভুট্টা উৎপাদন বৃদ্ধি করতে পারবেন। এজন্য কৃষি বিভাগে সব সময় কৃষকদের মাঠে গিয়ে ভুট্টা ক্ষেতের অবস্থান দেখে পরামর্শ দেওয়া হলে কৃষকরা ভুট্টা চাষে উৎসাহ পাবে এবং ফলন অধিক উৎপাদন করা সম্ভব হবে।
ঘোড়াঘাট উপজেলার ওসমানপুর ভুট্টাচাষি আব্দুর রহমান বলেন, ‘প্রতি বছর আমি এক একর জমিতে ভুট্টা আবাদ করে থাকি। ধানের চেয়ে খরচ কম করে দ্বিগুণ ভুট্টা উৎপাদন করা যায়। অনেক আশা করে জমি প্রস্তুতে ভুট্টার বীজ বোপণ করেছি। আশা করছি এবছর ভুট্টার ফলন অনেক ভালো হবে।
দিনাজপুর জেলা কৃষি অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক তৌহিদুল ইকবাল জানান, গত বছরের চেয়ে এবছর ভুট্টার চাষ অনেকটাই বৃদ্ধি পেয়েছে। গত বছর দিনাজপুরে ৬৯ হাজার ৫০০  হেক্টর জমিতে ভুট্টা চাষ হয়েছিল। এবারে তা বৃদ্ধি পেয়ে ১৩ উপজেলার প্রায় ৭১ হাজার ৩০০ হেক্টর জমিতে ভুট্টা উৎপাদনের লক্ষমাত্রা ধারা হয়েছে।
শুক্রবার পর্যন্ত জেলায় ৬৯ হাজার ৬২৫ হেক্টর জমিতে কৃষকরা ভুট্টা চাষ অর্জিত করেছে। আগামী ১৫ মার্চ পর্যন্ত ভুট্টা চাষ করার মৌসুম রয়েছে। মৌসুমের শেষ পর্যন্ত ভুট্টা চাষ হলে লক্ষ্যমাত্রার অতিরিক্ত ভুট্টা চাষ অর্জিত হবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যাক্ত করেন। কোনো প্রাকৃতিক দুর্যোগ না হলে এবারে জেলায় ভুট্টার বাম্পার ফলন অর্জিত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।
ঘোড়াঘাট উপজেলা কৃষি অফিসার এখলাছ হোসেন সরকার জানান, আমরা প্রতিনয়িত মাঠে কৃষকদের পাশে থেকে পরামর্শ দিয়ে আসছি। আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে আশা করছি এবছর কৃষকরা ভুট্টার বাম্পার ফলন পাবেন।