৭ মার্চের ভাষণ বাঙালির চার হাজার বছরের অস্তিত্বের ইতিহাস: আইজিপি

ঢাকা : পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. বেনজীর আহমেদ বলেছেন, ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৭ মার্চের ভাষণ বাঙালির চার হাজার বছরের অস্তিত্বের ইতিহাস। এই ২৩ মিনিটের ভাষণ থেকে চার হাজার বছরের এসেন্স পাওয়া যায়। এই এসেন্স নির্দেশ করে, আমরা কীভাবে এত বছর শুরু থেকে অতিক্রম করে জাতিসত্তা ও স্বাধীনতা অর্জন করেছি।’

বৃহস্পতিবার (৩১ ডিসেম্বর) রাজারবাগ পুলিশ লাইন্স অডিটরিয়ামে বাংলাদেশ পুলিশ মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘর আয়োজিত মহান বিজয় দিবস ২০২০ উপলক্ষে ‘বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশের স্বাধীনতা’ শীষর্ক আলোচনা সভা ও বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে লেখা বই ‘দিশারী’ এর মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

বেনজীর আহমেদ বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু যখন জনসমুদ্রের সামনে দাঁড়িয়ে বলেন, আজ আমি দুঃখ ভারাক্রান্ত মনে আপনাদের সামনে হাজির হয়েছি, তখন তিনি কিন্ত বাঙালি জাতির চার হাজার বছরের অস্তিত্ব হিসেবে দাঁড়িয়েছিলেন। তার এই দুঃখ ভারাক্রান্ত মন ছিল চার হাজার বছরের বঞ্চনার দুঃখ, অপমানের দুঃখ, বৈষম্যের দুঃখ। যে বৈষম্যের কারণে মানুষকে মনে করতে হয়েছে শুধু দুধভাত হলেই তাদের জন্য যথেষ্ট।’

আইজিপি বলেন, ‘তবে তার দেখানো পথে প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে এত উন্নতির পরও বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে কিছু ব্যক্তি যা বলেন, তা শুনে একটি কবিতার লাইন মনে হয়- সেসব কাহার জন্ম নির্ণয় ন জানি।’

বক্তব্য শেষে বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে লেখা বই ‘দিশারী’ এর মোড়ক উন্মোচন করেন আইজিপিসহ মঞ্চে উপস্থিত  অতিথিরা।  অনুষ্ঠানে মুখ্য আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক কবি হাবীবুল্লাহ সিরাজী। অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন ঢাকা মহানগর পুলিশের কমিশনার মোহা. শফিকুল ইসলাম। তাছাড়াও  অন্যান্য ঊর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।