চীনের বন্দরে ৮ মাস ‘জাহাজবন্দি’ ভারতীয় ২৩ নাবিক

মিরর ডেস্ক : চীনের উত্তরাঞ্চলের হুবেই প্রদেশে জিংগট্যাং বন্দরে দীর্ঘ ৮ মাস জাহাজে ‘বন্দিজীবন’ কাটাচ্ছেন ভারতীয় ২৩ নাবিক। গত মে মাসে অস্ট্রেলিয়া থেকে কয়লাভর্তি ‘এমভি জগ আনন্দ’ নামের জাহাজটি চীনের বন্দরে পৌঁছে।
তবে তাদেরকে পণ্য খালাস করতে এখনও অনুমতি দেয়নি চীনা কর্তৃপক্ষ। এমনকি জাহাজের নাবিকদের জাহাজ থেকে নামতেও দেয়া হচ্ছে না।

এছাড়া গত সেপ্টেম্বরে হুবেই প্রদেশের আরেকটি বন্দরে ‘এমভি আনাস্টাসিয়া’ নামে আরও একটি জাহাজ একইভাবে আটকে রাখা হয়েছে বলে অভিযোগ ভারতীয় সরকার। এ জাহাজে আরও ১৬ জন নাবিক রয়েছেন।

এদিকে বিষয়টি নিয়ে শুক্রবার (২৫ ডিসেম্বর) সরব হয়েছে ভারত। দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র অনুরাগ শ্রীবাস্তব বলেছেন, আমরা দেখেছি- অন্য কিছু জাহাজ ভারতীয় জাহাজের পরে ওই বন্দরে পৌঁছে পণ্য খালাস করে ফিরে গেছে। অথচ ভারতীয় জাহাজটি থেকে নাবিকদের নামতে পর্যন্ত দেয়া হচ্ছে না। এর কারণ আমাদের কাছে স্পষ্ট নয়।

তিনি বলেন, এমন পরিস্থিতিতে জাহাজের নাবিকদের উপর মানসিক চাপ তৈরি হয়েছে। বেইজিংয়ে ভারতের দূতাবাস চীনের কেন্দ্রীয় সরকার এবং প্রদেশ কর্তৃপক্ষের সঙ্গে তাদের বিষয়ে নিবিড় যোগাযোগ রাখছে। আমাদের পক্ষ থেকে আবেদন করা হয়েছে- পণ্য খালাস পরে হলেও জাহাজ থেকে যেন নাবিকদের নামতে দেয়া হয়।

অপরদিকে ভারতীয় দূতাবাসের আবেদনের প্রেক্ষিতে চীন জানিয়েছে, করোনাভাইরাস সংক্রান্ত কিছু স্থানীয় বাধানিষেধেল কারণে তারা নাবিকদের জাহাজ থেকে নামার অনুমতি দিতে পারছে না।

জানা গেছে, চীনে আটকে থাকা ‘এমভি জগ আনন্দ’ মুম্বইয়ের সংস্থা ‘গ্রেট ইস্টার্ন শিপিং লিমিটেডের’ হয়ে কাজ করে। চলতি বছরের জানুয়ারিতে তারা অস্ট্রেলিয়ার উদ্দেশে যাত্রা করে। সেখান থেকে কয়লা নিয়ে মে মাসের শুরু দিকে চীনের দিকে রওয়ানা করে। ১৩ জুন এমভি জগ আনন্দ চীনের জিংগট্যাং বন্দরে পৌঁছে। জাহাজটিতে ১ দশমিক ৭০ লক্ষ টন অস্ট্রেলিয়ান কয়লা রয়েছে।