কোমর চিকন করতে গিয়ে মারা গেলেন মডেল

মিরর বিনোদন : সবাই চায় নিজেকে আকর্ষণীয় করে রাখতে। অন্যের সামনে স্মার্টলি উপস্থাপন করতে। বিশেষ করে যারা শোবিজে কাজ করেন সেইসব নারী শিল্পীরা নিজেদের ফিগার ও ফিটনেস নিয়ে সবসময়ই থাকেন সচেতন। তবে অনেকে বেশি সচেতন হতে গিয়ে করুণ পরিস্থিতিরও শিকার হন।

যেমন হলেন জসলিন ক্যানো নামে মেক্সিকান এক মডেল। এই যুবতী নিজের কোমরকে সুদৃশ্য করতে গিয়ে প্রাণটাই অকালে দিয়ে দিলেন। মাত্র ২৯ বছর বয়সেই মৃত্যুবরণ করেছেন তিনি।

বেশ কিছু আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে খবরটি প্রকাশ হয়েছে। সে সূত্রে জানা গেছে, গেল ৭ ডিসেম্বর মারা গেছেন জসলিন।

নিজেকে সুন্দরী এবং আবেদনময়ী করার জন্য কোমরের নিচের অংশে অপারেশন করিয়েছিলেন জসলেন। আর এতেই ঘটে বিপদ। অপারেশনটি সুখকর ছিলো না এই মডেলের জন্য। যার দায় মেটাতে হলো প্রাণ বিসর্জন দিয়ে।

২০০৮ সালে মডেল ও ফ্যাশন ডিজাইনার হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেছিলেন জসলিন ক্যানো। ইনস্টাগ্রামসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তুমুল জনপ্রিয়তা ছিলো তার। সুন্দর চেহারায় ঝড় তুলেছিলেন বহু পুরুষের মনে।

আমেরিকার মডেল কিম কার্দেশিয়ানকে নিজের আইডল মনে করতেন তিনি। তারই মতো নিজেকে আকর্ষণীয় করে তুলতে চাইতেন জসলিন। তাই কোমরে অপারেশন করিয়েছিলেন শরীরের নিচের অংশটুকু কার্দেশিয়ানের মতো আবেদনময়ী করতে। কিন্তু নিজের সেই সৌন্দর্য বর্ধনই কাল হয়ে দাঁড়ালো এই মডেলের জন্য।