প্রেমিকের সঙ্গে দেখা করতে ঘরের তালা ভেঙেছিলেন কারিনা

মিরর বিনোদন : মুম্বাইয়ে টিনসেল টাউনে কারিনা কুপুরের খুনশুটির কথা অনেকেই জানে। তবে শৈশবেও নাকি খুব দুষ্টু ছিলেন তিনি। এতই দুষ্টুমি করতেন যে তাকে নাকি তার মা বোর্ডিং স্কুলে পাঠিয়ে দিয়েছিলেন। সেই সময়ে একটি ছেলেকে খুব পছন্দ হয়েছিল কারিনার। সেখান থেকে বেজায় চটেছিলেন তার মা। সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে এই তথ্য জানিয়েছেন কারিনা কাপুর।

তিনি যখন কিশোরী, তখন ওই ছেলেটিকে পছন্দ হয়। মায়ের কাছে কিছুটা বায়না করেই বলেছিলেন ছেলেটির সঙ্গে দেখা করতে যাওয়ার কথা। কিন্তু মায়ের কাছ থেকে অনুমতি মেলেনি কারিনার। এর মধ্যেই একদিন তার মা বাড়ি থেকে বের হন। সেদিন ঘরের তালা ভেঙে ভেতরে ঢোকেন কারিনা কাপুর। ঘরেই ছিল টেলিফোন। ছেলেটিকে ফোন করেন এবং তারপর দেখা করতে যান তিনি। আর এসব দেখেই রেগে যান কারিনার মা। তারপর বোর্ডিং স্কুলে পাঠিয়ে দেন। তখন কারিনার বয়স ১৪-১৫ বছর বয়সের কাছাকাছি।

কারিনা কাপুর বলেন, ‘আ‌মার বয়স তখন ১৪-১৫। আমার ছেলেটিকে সত্যিই খুব পছন্দ ছিল। কিন্তু মা বিষয়টা ভালভাবে নেননি। সিঙ্গেল মাদার হিসেবেই আরও বলে দিয়েছিলেন যে, এসব করলে চলবে না।’

এদিকে দ্বিতীয়বার মা হতে চলেছেন অভিনেত্রী কারিনা কাপুর। করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে লকডাউনের মধ্যেই এই সুখবর ভক্তদের জানিয়েছে তিনি।