ভিসা নিষেধাজ্ঞা এড়াতে পাকিস্তানের দৌড়ঝাঁপ, ‘পাত্তা’ দিল না আমিরাত

মিরর ডেস্ক : ভিসা নিষেধাজ্ঞা এড়াতে সংযুক্ত আরব আমিরাতের দ্বারস্থ হয়েছে পাকিস্তান। তবে এতে দেশটি কোন সুফল আনতে পারেনি।

আল জাজিরার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত মাসে আমিরাতের দেওয়া ভিসা নিষেধাজ্ঞা এড়াতে দেশটির শাসকের সঙ্গে এক বৈঠক করেছে পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী। তবে এতে লাভ হয়নি পাকিস্তানের।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশী গত বৃহস্পতিবার দুবাইতে দেশটির শাসক শেখ মোহাম্মদ বিন রশিদ আল মাক্তুমের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন।

পাকিস্তানের পক্ষ থেকে দেওয়া বিবৃতিতে বলা হয়েছে, কুরেশী দুই দেশের মধ্যে সম্পর্ক জোরদার, দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্যিক সম্পর্ক বৃদ্ধি এবং বিনিয়োগ বাড়াতে বিশেষ করে কৃষিক্ষেত্রে, এসবের ওপর আলোচনা করেছেন।

এছাড়া তিনি আমিরাতে পাকিস্তানি প্রবাসীদের কল্যাণ সংক্রান্ত বিষয় নিয়েও আলোচনা করেছেন। সেইসঙ্গে কুরেশী আমিরাতের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গেও সাক্ষাৎ করেছেন।

তবে ভিসা নিষেধাজ্ঞার ব্যাপারে কোন সুরহা মিলেনি বলে খবরে বলা হয়েছে।

গত মাসে সংযুক্ত আরব আমিরাত জানায়, বিশ্বের ১৩টি দেশের নাগরিকদের জন্য নতুন ভিসা ইস্যু করবে না। এই ১৩টি দেশের মধ্যে কেনিয়া বাদে ১২টিই মুসলিম প্রধান দেশ, জানায় আমিরাতের রাষ্ট্রীয় সংবাদ মাধ্যম।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের বরাতে জানা যায়, সংযুক্ত আরব আমিরাতের এ সিদ্ধান্ত গত ১৮ নভেম্বর থেকে কার্যকর হয়। যেসব দেশ আমিরাতের ভিসা নিষেধাজ্ঞার আওতায় পড়েছে সেগুলো হলো -ইরান, তুরস্ক, পাকিস্তান, আফগানিস্তান, কেনিয়া, সোমালিয়া, আলজেরিয়া, লেবানন, সিরিয়া, ইরাক, লিবিয়া, তিউনিশিয়া এবং ইয়েমেন। আল জাজিরা