ক্ষমতা ভোগ ছাড়া আ.লীগের কোনো চেতনা নেই : ফখরুল

মিরর ডেস্ক :ক্ষমতা ভোগ ছাড়া আওয়ামী লীগের কোনো চেতনা নেই বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। ‌

বুধবার (১৬ ডিসেম্বর) গণমাধ্যমে দলের সহ-দপ্তর সম্পাদক বেলাল আহমেদ স্বাক্ষরিত পাঠানো এক বিবৃতিতে তিনি এ মন্তব্য করেন ‌।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘ইঞ্জিনিয়ার ইশরাক হোসেন একজন তরুণ বিএনপি নেতা ও সমাজসেবক। তার সমাজসেবামূলক কর্মকাণ্ড ও জনপ্রিয়তায় ঈর্ষান্বিত হয়েই ক্ষমতাসীন দলের সন্ত্রাসীরা গতরাতে তার বাসভবনে হামলা চালিয়েছে। এ ধরনের হামলার নিন্দা জানানোর ভাষা আমার জানা নেই। আসলে আওয়ামী লীগের কোনো চেতনাই নেই, তাদের একটিই চেতনা, আর সেটি হলো ক্ষমতা ভোগের চেতনা।’

ফখরুল বলেন, ‘এছাড়া আজ মহান বিজয় দিবসে শান্তিপূর্ণভাবে শহিদ বেদীতে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করতে গেলে ফেনীর ফুলগাজী ও পরশুরাম উপজেলায় বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীদের ওপর আওয়ামী সন্ত্রাসীদের হামলায় আবারও প্রমাণিত হলো বাংলাদেশ নামক স্বাধীন রাষ্ট্রটি এখন সন্ত্রাসের অভয়ারণ্যে পরিণত হয়েছে। একটি গণতান্ত্রিক দেশে এখন রাজনৈতিক দলগুলোর সভা-সমাবেশের ওপরই কেবল বাধা দেয়া হচ্ছে না, বরং যেকোনো জাতীয় দিবসের অনুষ্ঠানসূচিতেও কাপুরুষোচিত হামলা চালানো হচ্ছে। নেতাকর্মীদেরকে রক্তাক্ত করা হচ্ছে, নির্দয় ভাবে গ্রেফতার করা হচ্ছে। এই মহান দিনেও বিএনপি এবং এর অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের ওপর আওয়ামী সন্ত্রাসীদের বর্বরোচিত হামলা-নির্যাতন বর্তমান সরকারের জোর করে ক্ষমতায় থাকারই আলামত।’

বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘ভয়াবহ সন্ত্রাসের মাধ্যমে দেশের মানুষকে ভীতসন্ত্রস্ত রেখে রাষ্ট্রক্ষমতা ধরে রাখতে দেশে গুম, খুন, অপহরণ, হামলা-মামলা, গ্রেফতার ও নির্যাতন-নিপীড়নের মাধ্যমে এক নাৎসি-রাজ কায়েম করা হয়েছে। দমন-পীড়ন চালিয়ে জনগণের মৌলিক অধিকার হরণ এবং মানবিক মর্যাদা ভূলুণ্ঠিত করে দেশে এক ভয়াল পরিবেশ সৃষ্টি করা হয়েছে। এই ধরনের সহিংস জুলুম ও রক্তপাতের বিরুদ্ধে দেশের মানুষের ঐক্যবদ্ধ হওয়া ছাড়া কোনো বিকল্প পথ নেই।’

অবিলম্বে ইশরাক হোসেনের বাসভবনে হামলাকারীসহ ফেনীর ফুলগাজী এবং পরশুরাম উপজেলায় বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীদের ওপর হামলাকারীদের গ্রেফতার এবং দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির জোর দাবি জানান।