শহীদ বুদ্ধিজীবীদের প্রতি রাজনীতিকদের শ্রদ্ধা

মিরর ডেস্ক : ১৪ ডিসেম্বর শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস উপলক্ষে দেশের শ্রেষ্ঠ সন্তানদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়েছে বিভিন্ন রাজনৈতিক দল। এছাড়া দিবসটিকে স্মরণ করতে দলগুলোর পক্ষ থেকে শ্রদ্ধা জানানো হবে বুদ্ধিজীবী গোরস্থানে। আয়োজন করা হয়েছে স্মরণ ও আলোচনা সভাও।
রবিবার (১৩ ডিসেম্বর) পৃথক-পৃথক শোকবাণীতে বিএনপি, জাতীয় পার্টিসহ কয়েকটি রাজনৈতিক দলের নেতারা শ্রেষ্ঠ সন্তানদের স্মরণ করেন।
১৪ ডিসেম্বর ইতিহাসের এক কলঙ্কজনক অধ্যায় হিসেবে উল্লেখ করে এক বানীতে বিরোধীদলীয় নেতা রওশন এরশাদ বলেন, ‘একাত্তরের এই দিনে বাংলাদেশের ইতিহাসে সংযোজিত হয়েছিল এক কলঙ্কজনক অধ্যায়। মুক্তিযুদ্ধে আমাদের বিজয়ের প্রাক্কালে দখলদার পাকিস্তানি বাহিনী ও তার দোসররা পরাজয় নিশ্চিত জেনে মেতে ওঠে বুদ্ধিজীবী হত্যাকাণ্ডে। প্রতিহিংসার বশবর্তী হয়ে তারা হত্যা করে জাতির অনেক কৃতি সন্তানকে।’
শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস উপলক্ষে জাতির সেরা সন্তানদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়েছেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান ও মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। বানীতে বিএনপির মহাসচিব বলেন, ১৪ ডিসেম্বর একটি বেদনাময় দিন। বাংলাদেশকে মেধা মননে পঙ্গু করার হীন উদ্দেশে চূড়ান্ত বিজয়ের ঊষালগ্নে এ দিনে হানাদার বাহিনীর দোসররা দেশের প্রথিতযশা শিক্ষক, সাংবাদিক, চিকিৎসক বিজ্ঞানীসহ বিশিষ্ট বুদ্ধিজীবীদের নৃশংসভাবে হত্যা করেছিল। তারা মনে করেছিল জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তানদের হত্যা করলেই এই দেশ দুর্বল হয়ে পড়বে এবং উন্নয়ন অগ্রগতি রুদ্ধ করে দেয়া যাবে। স্বাধীনতা অর্জন করলেও বাংলাদেশ এগিয়ে যাওয়ার পথে মুখ থুবড়ে পড়বে। কিন্তু তাদের সে উদ্দেশ্য সফল হয়নি।

এক বানীতে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জিএম কাদের বলেন, ‘পৃথিবীর বুকে যখন বাংলাদেশ নামে একটি স্বাধীন ভূখণ্ডের অভ্যুদয় নিশ্চিত হয়েছিল তখন পাক হানাদার বাহিনী নিশ্চিত পরাজয় জেনে ঘৃণ্য ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়েছিল। স্বাধীনতাকামী বাঙালী জাতি যেন মেধা-মননে মাথা তুলে দাঁড়াতে না পারে, সেজন্য তারা জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান বুদ্ধিজীবীদের হত্যায় মেতে ওঠে। স্বাধীনতার জন্য আত্মদান করেন অগণিত সূর্যসন্তান।’

৪৯তম শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস উপলক্ষে ঐক্য ন্যাপ সভাপতি ও সম্মিলিত সামাজিক আন্দোলন প্রেসিডিয়াম সদস্য পঙ্কজ ভট্টাচার্য বলেন, ‘বিজয়ের সুবর্ণজয়ন্তী দ্বারপ্রান্তে দাড়িয়ে দেশবাসী আজ বিমর্ষ, মর্মাহত। ’
বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক শহীদ বুদ্ধিজীবীদের অমর স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেছেন। তিনি বলেন, বাংলাদেশের অভ্যুদয় আর এই বুদ্ধিজীবীদের গৌরবময় ভূমিকা ওতপ্রোতভাবে সম্পর্কিত। জাতি বুদ্ধিজীবীদের ভূমিকা শ্রদ্ধার সাথেই স্মরণ করবে।
বাংলাদেশ ন্যাপ চেয়ারম্যান জেবেল রহমান গানি ও মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভুইয়া বলেন, ‘শহীদ বুদ্ধিজীবীদের ত্যাগ ও আদর্শ আর চলার পথটিকে আজকের তরুণ প্রজন্মের কাছে খুব ভালো ভাবে জাগ্রত করা প্রয়োজন।’
শহীদ বুদ্ধিজীবী হত্যাকারীদের বিচার ও সাম্প্রদায়িক রাজনীতি নিষিদ্ধের দাবি জানিয়েছে সম্মিলিত সামাজিক আন্দোলন।