বিয়ের রাতে সিগারেট জ্বালিয়েই ঘুম, বৌভাতের সকালে মিলল বরের লাশ

মিরর ডেস্ক : বৌভাতের অনুষ্ঠানেরস দিন সকালে বাড়িভর্তি অতিথিতে, শুধু দেখা যাচ্ছিল না বরকে। সবই ভেবেছিলেন ঘুমিয়ে আছেন তিনি। কিন্তু অনেক বেলা হওয়ার পরও বরের দেখা না পেয়ে বাড়ির লোকজন ডাকতে যান তাকে। কিন্তু বরের ঘরে গিয়ে পাওয়া যায় তার লাশ।

শনিবার সকালে ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের নেতাজিনগর এলাকায়। নিহত ওই যুবকের নাম নীলাদ্রি চক্রবর্তী (২৬)।

নেতাজিনগর থানা পুলিশ জানিয়েছে, গত ১০ ডিসেম্বর বিয়ে হয় নীলাদ্রির। শুক্রবার গভীর রাত পর্যন্ত নিজের ঘরেই বন্ধুদের সঙ্গে পার্টি করেন তিনি। শনিবার সকালে ওই ঘর থেকেই তার লাশ উদ্ধার করা হয়। এসময় ধোঁয়ায় ভরা ছিল ঘরটি। পুলিশের প্রাথমিক ধারণা, সিগারেট ধরিয়ে ঘুমিয়ে পড়েন ওই যুবক। সেখান থেকে কোনওভাবে বালিশে আগুন লেগে ধোঁয়ায় ভর্তি হয়ে যায় ঘর। বন্ধুদের সঙ্গে মদ্যপান করায় তার হঁশ ছিল না বলেই ঘুমের মধ্যে দমবন্ধ হয় মৃত্যু হয়েছে বলে ধারণা করছেন তদন্তকারীরা। এ ঘটনায় নীলাদ্রির বন্ধুদের জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ।

নিহতের পারিবার জানিয়েছে, শনিবার সকালে নীলাদ্রির বাবা নিশীথ চক্রবর্তী ছেলেকে ডাকতে যান। তিনি দরজা খুলে দেখেন ধোঁয়াভর্তি ঘরে নীলাদ্রি অচেতন অবস্থায় পড়ে আছেন। সঙ্গে সঙ্গে তাকে স্থানীয় একটি বেসরকারি হাসপাতলে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

পুলিশ জানিয়েছে, খবর পেয়ে নীলাদ্রির লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কাটাপুকুর মর্গে পাঠানো হয়।

এদিকে ময়নাতদন্তের পর চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, আলসারের রোগী ছিলেন নীলাদ্রি, যকৃতেও সমস্যা ছিল তার। শরীরে অতিরিক্ত কার্বন-ডাই-অক্সাইড প্রবেশ করায় মৃত্যু হয়েছে তার।খবর আনন্দবাজারের।