আঙুলের চোটে অধিনায়ককে হারাল পাকিস্তান

মিরর স্পোর্টস : নিউজিল্যান্ড সফরে একের পর এক দুঃসংবাদ পাচ্ছে পাকিস্তান ক্রিকেট দল। প্রথমে দশজনের করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার খবর একধরনের সংশয়-শঙ্কায় ছিল পুরো পাকিস্তান শিবির। সে ধাক্কা সামলে যখন মাঠের খেলায় নজর দিয়েছে তারা, তখন আবার পেল আরেক দুঃসংবাদ।

আঙুলের চোটে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজটি খেলতে পারবেন না পাকিস্তান অধিনায়ক বাবর আজম। রোববার সকালে অনুশীলনে থ্রো-ডাউনে ব্যাট করার সময় ডানহাতে বুড়ো আঙুলে ব্যথা পেয়েছেন টি-টোয়েন্টি র‍্যাংকিংয়ে বিশ্বের দ্বিতীয় সেরা এ ব্যাটসম্যান। সঙ্গে সঙ্গে নেট থেকে বেরিয়ে যান তিনি।

পরে স্থানীয় এক হাসপাতালে নিয়ে প্রয়োজনীয় পরীক্ষানিরীক্ষার পর জানা গেছে, বৃদ্ধাঙ্গুলিতে চিড় ধরা পড়েছে বাবরের। ফলে অন্তত ১২ দিনের জন্য মাঠের বাইরে থাকতে হবে তাকে। যার মানে দাঁড়ায় আগামী ১৮, ২০ ও ২২ ডিসেম্বর হতে যাওয়া টি-টোয়েন্টি সিরিজের ম্যাচগুলোতে অধিনায়ককে পাবে না পাকিস্তান।

আশা করা হচ্ছে, আগামী ২৬ ডিসেম্বর মাউন্ট মঙ্গানুইয়ের বে ওভালে হতে যাওয়া টেস্ট সিরিজের প্রথম ম্যাচটি খেলতে পারবেন বাবর। কিন্তু সেই ম্যাচের মাত্র ১৩ দিন বাকি থাকায় খেলার সম্ভাবনা খুবই কম বলা চলে। বাবরের আগে একইভাবে আঙুলের ইনজুরিতে ১২ দিনের জন্য ছিটকে গেছেন বাঁহাতি ওপেনার ইমাম উল হক।

এদিকে বাবর ছিটকে যাওয়ায় স্বাভাবিকভাবেই টি-টোয়েন্টি সিরিজের অধিনায়কত্ব বর্তেছে শাদাব খানের কাঁধে। কিন্তু তারও কুচকিতে রয়েছে সমস্যা। যা তাকে বোলিং করতে দিচ্ছে না। ফলে রোববার শুধু ব্যাটিং অনুশীলন করেছেন শাদাব। মেডিকেল টিমের পর্যবেক্ষণে রয়েছেন তিনি। কুচকির সমস্যা সেরে গেলে তার অধীনেই টি-টোয়েন্টি সিরিজটি খেলবে পাকিস্তান।

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে পাকিস্তানের পরিবর্তিত টি-টোয়েন্টি স্কোয়াড
শাদাব খান (অধিনায়ক), আব্দুল্লাহ শফিক, ফাহিম আশরাফ, হায়দার আলি, হারিস রউফ, হুসাইন তালাত, ইফতিখার আহমেদ, ইমাদ ওয়াসিম, খুশদিল শাহ, মোহাম্মদ হাফিজ, মোহাম্মদ হাসনাইন, মোহাম্মদ রিজওয়ান, মুসা খান, সরফরাজ আহমেদ, শাহিন শাহ আফ্রিদি, উসমান কাদির ও ওয়াহাব রিয়াজ।

পাকিস্তান সিরিজে নিউজিল্যান্ডের টি-টোয়েন্টি স্কোয়াড

প্রথম ম্যাচ
মিচেল স্যান্টনার (অধিনায়ক), টড অ্যাস্টল, ডগ ব্রেসওয়েল, মার্ক চ্যাপম্যান, ডেভন কনওয়ে, জ্যাকব ডাফি, মার্টিন গাপটিল, স্কট কুগলেইন, জিমি নিশাম, গ্লেন ফিলিপস, টিম সেইফার্ট (উইকেটরক্ষক), ইশ সোধি এবং ব্লেয়ার টিকনার।

শেষ দুই ম্যাচ
কেন উইলিয়ামসন (অধিনায়ক), টড অ্যাস্টল, ট্রেন্ট বোল্ট, ডেভন কনওয়ে, মার্টিন গাপটিল, কাইল জেমিসন, স্কট কুগলেইন, ড্যারেল মিচেল, জিমি নিশাম, গ্লেন ফিলিপস, টিম সেইফার্ট (উইকেটরক্ষক), ইশ সোধি এবং টিম সাউদি।