বিয়ে বাড়িতে হামলা করে বরের বাবা-ভাইকে কুপিয়ে জখম

গাজীপুর প্রতিনিধি : গাজীপুরের কাপাসিয়ায় পূর্ব শত্রুতার জেরে এক বিয়ে বাড়িতে হামলার ঘটনা ঘটেছে। এ সময় বরের বাবা ও ভাইকে কুপিয়ে জখম করেছে দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনায় শনিবার বরের মা নাছিমা বেগম কাপাসিয়া থানায় অভিযোগ করেছেন।

অপরদিকে অভিযুক্তের মা মোমেলা খাতুনও বাদী হয়ে মারামারি ও ঘর ভাঙচুরের অভিযোগ এনে একই থানায় পাল্টা মামলা করেছেন।বরের আহত বাবা আহাম্মদ আলী (৫৬) এবং ভাই মো. নাঈমকে (২৬) শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

গাজীপুরের কাপাসিয়া বাজারের বানারহাওলা গ্রামের বাসিন্দা বরের মা নাছিমা বেগম জানান, শুক্রবার তার বড় ছেলে ফ্রান্স প্রবাসী নাজমুল হাসানের বিয়ের দিন ছিল। এদিন দুপুরে শুধু তার (স্বামীর বড় বোন) ননাসকে বাড়িতে রেখে সকলে নরসিংদীর পলাশের চরসিন্দুর এলাকায় কনের বাড়িতে বরযাত্রী যান সবাই। রাত ৯টার দিকে বাড়িতে ফিরে এসে তারা দেখতে পান প্রতিবেশী আফাজ উদ্দিন গং তাদের বসত ঘরের পাশে সীমানা প্রাচীর ও ঘর তৈরি করেছে।

অভিযোগ করে তিনি জানান, বিষয়টি জানতে তার স্বামী আহাম্মদ আলী প্রতিবেশী আফাজ উদ্দিনের কাছে জানতে চাইলে তিনি দলবল নিয়ে বিয়ে বাড়িতে গিয়ে তার স্বামীর ওপর হামলা চালান। পরে তার মেজ ছেলে নাঈম তাকে রক্ষা করতে গেলে তার ওপরও ধারালো অস্ত্র ও লাঠিসোটা দিয়ে হামলা চালান তারা। এতে স্বামী আহম্মদ আলী ও ছেলে নাঈম আহত হন।পরে এলাকাবাসী ও স্বজনরা তাদের উদ্ধার করে শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন।

এ ঘটনায় শনিবার বরের মা নাছিমা বেগম বাদী হয়ে কাপাসিয়া থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। কাপাসিয়া থানার পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।

অপরদিকে আফাজ উদ্দিনের মা মোমেলা খাতুনও বাদী হয়ে মারামারি ও ঘর ভাঙচুরের অভিযোগ এনে একই দিন একই থানায় পাল্টা মামলা করেছেন।তার বক্তব্য জানতে প্রতিপক্ষ আফাজ উদ্দিনের ফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি।

কাপাসিয়া থানার ওসি মো. আলম চাঁদ জানান, বানারহাওলা গ্রামের আহম্মদ আলী ও প্রতিবেশী মো. আফাজ উদ্দিন গংদের মধ্যে জমি নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলছে। এ নিয়ে শুক্রবার উভয় পক্ষের মধ্যে মারামারির ঘটনা ঘটে।

তিনি বলেন, এতে দুই পক্ষের লোকজনই আহত হন। দুই পক্ষেরই লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।