৩০ বছর পর ভারত থেকে চাল আমদানি করছে চীন

মিরর ডেস্ক : তিন দশকের মধ্যে প্রথমবার ভারত থেকে চাল আমদানি করছে চীন। সরবরাহের ঘাটতিসহ ভারত থেকে দাম কম রাখার প্রস্তাব পেয়ে সীমান্ত বিরোধ সত্ত্বেও চীন আবার চাল আমদানি শুরু করেছে বলে জানাচ্ছে রয়টার্স।

বিশ্বের সর্ববৃহৎ চাল রফতানিকারক দেশ ভারত এবং সর্ববৃহৎ আমদানিকারক চীন। বেইজিং প্রতি বছর ৪০ লাখ টন চাল আমদানি করে। কিন্তু গুণগত মানের কথা বলে দেশটি এতদিন ভারত থেকে চাল আমদানি করতো না।

হিমালয়ঘেঁষা সীমান্ত বিরোধ নিয়ে প্রতিবেশী পারমাণবিক শক্তিধর দেশ দুটির চলমান রাজনৈতিক ও সামরিক উত্তেজনার মধ্যেই ভারত থেকে চীনের চাল আমদানি শুরুর এ খবর জানিয়েছে ভারতের শিল্পখাত সংশ্লিষ্টরা।

চাল রফতানিকারকদের সংগঠন রাইস এক্সপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি বি ভি কৃষ্ণা রাও বলেন, ‘প্রথমবারের মতো চাল কিনছে চীন। মান দেখে তারা হয়তো আগামী বছর থেকে আমদানির পরিমাণ বাড়াবে।’

ভারতের শিল্প মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, ‘চলতি ডিসেম্বর থেকে ফেব্রুয়ারির মধ্যে প্রতি টন ৩০০ ডলার হিসেবে এক লাখ টন চাল জাহাজে তুলে দিতে চীনা বণিকদের সঙ্গে চুক্তি করেছে রফতানিকারকরা।’

চীন সাধারণত থাইল্যান্ড, ভিয়েতনাম, মিয়ানমার ও পাকিস্তান থেকে চাল আমদানি করে। কিন্তু এসব দেশের রফতানির মতো উদ্বৃত্ত চাল নেই। এ ছাড়া ভারতের তুলনায় প্রতি টনে ৩০ ডলার বেশি মূল্য চেয়েছে তারা।